Tuesday, March 22, 2016

আইলপাড়া-পাঠানটুলী এলাকায় হাত বাড়ালেই পাওয়া যাচ্ছে ইয়াবা -

yaba-siddhirganj

আইলপাড়া-পাঠানটুলী এলাকায় হাত বাড়ালেই পাওয়া যাচ্ছে ইয়াবা। সহজলভ্যে এই ইয়াবা তরুণ ও কিশোরদের করছে বিপদগামী। এলাকায় মাদক ব্যবসা প্রতিরোধে সভা সমাবেশ করেও কোন লাভ হচ্ছে না। । মাদক ব্যবসায়ীরা এতই বেপরোয়া হয়ে উঠেছে যে, তারা কাউকে মানছে না। । এলাকার অভিভাবক মহল এ নিয়ে রয়েছে চিন্তিত ও শঙ্কিত।
এলাকাবাসী সূত্রে প্রকাশ, সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন সিটি কর্পোরেশনের ৮নং ওয়ার্ডের আইলপাড়া পাঠানটুলী এলাকা বর্তমানে ক্রাইম জোন হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। শুধু তাই নয় পর পর গত দুই বার জেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় উক্ত এলাকার মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করে এলাকাকে মাদকমুক্ত করার কথা উঠেছে। কিন্তু অদ্যাবধি প্রশাসনের তেমন কোন অভিযান লক্ষ্য করা যাচ্ছে না বিধায় এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।একাত্তর লাইভ ডট কমের সিদ্ধিরগঞ্জ সংবাদদাতার মাধ্যমে   জানা যায় পুরাতন আইলপাড়ার  কিছু চিহ্নিত  কয়েকজন ( নাম উল্লেখ করা হোল না )  ইয়াবা ও মাদক ব্যবসায়ী ভোর সকাল থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত বীরদর্পে তাদের মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

উক্ত মাদক ব্যবসায়ীদের নামে বিভিন্ন থানা ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে মাদক মামলা সহ বিষ্ফোরক ও হত্যা মামলাসহ বিভিন্ন মামলা এবং অভিযোগ রয়েছে। গত ২২ মার্চ মাদক  বিক্রেতা  দেলোয়ার হোসেন দেলুকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ এলাকাবাসীর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গ্রেফতার করে ৬টি মামলায় আটক দেখায়। সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে গতকাল বিজ্ঞ আদালতে আসামী দেলুকে হাজির করলে বিজ্ঞ আদালত ৫দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। ইতিমধ্যে দেলু এলাকার বেশ কয়েকজন মাদক ব্যবসায়ীর নাম প্রকাশ করেছে বলে জানা যায়। উক্ত মাদক স¤্রাট দেলুর রয়েছে একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক। সেই সাথে দেলুর বেশ কয়েকটি অবৈধ অস্ত্র থাকায় এলাকাবাসী সব সময় শঙ্কিত থাকতো। এলাকাবাসী দেলুর অবৈধ অস্ত্র ও দেলুর শেল্টার দাতাদের গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছে। জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর, জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ডিবি ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ যথাযথ ব্যবস্থা নিলে এবং জেলা প্রশাসনের কঠোর ভূমিকা থাকলে আইলপাড়া পাঠানটুলী এলাকা মাদকমুক্ত হবে বলে এলাকাবাসী বিশ্বাস করে।

0 comments:

Post a Comment